মুজিববর্ষের পুনর্বিন্যস্ত অনুষ্ঠানসূচির ব্যাপারে আমন্ত্রিত বিদেশী অতিথিদের জানানো হয়েছে

0
36

ঢাকা,পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন মঙ্গলবার বলেছেন, দেশে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতির প্রেক্ষিতে মুজিব বর্ষ উদ্যাপন কর্মসূচির পুনর্বিন্যস্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যাপারে আমন্ত্রিত বিদেশী অতিথিদের জানানো হয়েছে।
তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিব বর্ষ উদযাপনের পূনর্বিন্যস্ত অনুষ্ঠানের পরিকল্পনার কথা জানিয়ে রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের চিঠি দিয়েছেন।’
রাজধানীর মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উদ্যাপন ‘আন্তর্জাতিক কর্মসূচি ও যোগাযোগ’ বিষয়ক উপ-কমিটির এক বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
মোমেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁর চিঠিতে জানান, বাংলাদেশ মুজিব বর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বর্ষব্যাপী ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। তাই, বিদেশী অতিথিরা তাদের নির্ধারিত সফর সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তবে, তারা বিদেশী অতিথিদের এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ভ্রমনে নিরুৎসাহিত করছেন।
তবে, মন্ত্রী আশা করেন যে, আমন্ত্রিত বিদেশী গণ্যমান্য ব্যক্তিরা ২০২০ সালের মার্চ থেকে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত মুজিব বর্ষের যে কোনও সময় এই উদযাপনে যোগ দেবেন।
ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীসহ আমন্ত্রিত বিদেশী গণ্যমান্য ব্যক্তিরা মুজিববর্ষ উদযাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন বলে আশা করা হয়েছিল এবং মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় সংসদের অতিরিক্ত সাধারণ সংসদ অধিবেশনে ভাষণ দেয়ার জন্য ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি এবং নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।
এদিকে, ভারতীয় পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রনালয় নিশ্চিত করেছে যে, বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জানার পরে নরেন্দ্র মোদীর সফর স্থগিত করা হয়েছে। (বাসস):