রাত ১:১৮, রবিবার, ২রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, ৮ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

নির্বাচন করতে বিএনপিকে কোনো কাকুতি-মিনতি নয় – তোফায়েল আহমেদ

61
তোফায়েল আহমেদ

বাংলাদেশের আসন্ন সাধারণ নির্বাচন নিয়ে বিরোধী বিএনপি’র দাবি দাওয়া কড়া গলায় নাকচ করে দিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা এবং মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

বিবিসিকে তিনি বলেন, “সংবিধান পরিপন্থী” কোনো দাবি-দাওয়া মানার প্রশ্নই ওঠে না।

আজ ঢাকায় এক দলীয় সম্মেলনে বিএনপি তাদের যে সাত-দফা দাবি ঘোষণা করেছে, তার মধ্যে নির্বাচনের আগে সংসদ বিলুপ্তি, নির্বাচন-কালীন নির্দলীয় সরকার গঠন, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন এবং নির্বাচনের সময় ম্যাজিস্ট্রেসি ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করার কথা রয়েছে।

এক এক করে এসব দাবি জোর গলায় প্রত্যাখ্যান করেছেন তোফায়েল আহমেদ।

“বিএনপির দাবিগুলো সংবিধান পরিপন্থী। এগুলো মানার কোনো প্রশ্নই আসেনা। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুসারে। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তারিখ মতই নির্বাচন হবে। বর্তমান সরকারই নির্বাচন-কালীন সরকারের ক্ষমতায় থাকবে। আকারে কিছুটা ছোটো হতে পারে যদিও তা প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার।”

তোফায়েল আহমেদ বলেন, “পৃথিবীর দেশে দেশে যেভাবে নির্বাচন হয় বাংলাদেশেও সেভাবে হবে। সংবিধানের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই।”

“এখন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা না করা বিএনপির ব্যাপার। আমরা জোর করে কাউকে আনতে পারবো না। নির্বাচন তাতে থেমে থাকবে না। নির্বাচন হবেই।”

রোববার ঢাকায় বিএনপির জনসভা
রোববার ঢাকায় বিএনপির জনসভা। সাত-দফা দাবি দেওয়া হলেও তা না মানলে নির্বাচন বয়কটের কোনো কথা বলেননি দলের নেতারা

২০১৪ সালের নির্বাচনের মত একতরফা নির্বাচনে করার ঝুঁকি কি তারা আবার নেবেন? এই প্রশ্নে তোফায়েল আহমেদ বলেন, বিএনপি এবার নির্বাচন না করলে তাদের অস্তিত্ত্বের সঙ্কট তৈরি হবে।

“যে কোনো নির্বাচনেই দুই, চার দশটি দল না আসতে পারে। তাতে নির্বাচনের বিশ্বাসযোগ্যতা নষ্ট হয়না। ১৯৭০ এর নির্বাচনে ভাসানী ন্যাপ আসেনি, তাদেরকে আপনি এখন বাটি চালান দিয়েও খুঁজে পাবেন না।এবার নির্বাচন না করলে বিএনপির অবস্থা তেমনই হবে। তারা অস্তিত্বের সঙ্কটে পড়বে।”

“বিএনপির কাছে কাকুতি-মিনতি করে নির্বাচন করার ইচ্ছা আমাদের নেই।”বিবিসি



sky television /স্কাই টিভি


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *