রাত ১১:৫২, মঙ্গলবার, ৪ঠা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৮ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং, ১১ই রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

উপকূলীয় নিরাপত্তা বিধানে ভারত ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ

66

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপকূলীয় নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ এবং ভারতীয় নৌবাহিনীর মধ্যে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
তিনি বলেন, উপকূলীয় নিরাপত্তা বিধানে আমরা ভারতীয় নৌবাহিনীর সঙ্গে অভিজ্ঞতা বিনিময় করতে পারি।’
ভারতের নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল সুনীল লেনবা আজ সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে তাঁর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে শেখ হাসিনা একথা বলেন।
বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।
এডমিরাল লেনবা বলেন, ‘দুই দেশের নৌবাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক আরো দৃঢ় হচ্ছে এবং আমরা একে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’
তিনি বলেন, দুই দেশের নৌবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতায় ইতোমধ্যেই বেশ কিছু ক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছে এবং কিছু সহযোগিতা এখন চলছে।
ভারতের নৌবাহিনী প্রধান দুই দেশের নৌবাহিনীর মধ্যে আরো সহযোগিতার প্রস্তাব করেন।
বৈঠকে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে সমুদ্র সীমা নিয়ে সমস্যা শান্তিপূর্ণ সমাধানের প্রসংগ উল্লেখ করে তিনি একে দুই দেশের মধ্যে ‘বন্ধুত্বের উজ্জ্বল নিদর্শন’ বলে আখ্যায়িত করেন।
দুটি প্রতিবেশী দেশের মধ্যে ঐতিহ্যগত সম্পর্ক বিদ্যমান থাকার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের সশ¯্র বাহিনীর অবদানের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন।
তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অনেক ভারতীয় সৈনিক আত্মাহুতি দিয়েছে।’
প্রতিবেশী এই দুই দেশের মধ্যে সুসম্পর্ক বিদ্যমান থাকার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই পারস্পরিক সহযোগিতা বিদ্যমান থাকলে আমরা সম্ভাব্য অনেক কিছুই করতে পারি।’
বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে কানেকটিভি জোরদারের প্রসংগ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগের ক্ষেত্রে ১৯৬৫ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর অনেক রেল পথ, নৌপথ এবং সড়ক পথ- যেগুলো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সেগুলো পুনরায় খোলা হয়েছে এবং আরো বেশ কিছু পুনরায় চালুর অপেক্ষায় রয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী দুই দেশের মধ্যকার সীমান্ত সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানের প্রসংগ উল্লেখ করে বলেন, ভারতের পার্লামেন্টে সকল দল সর্বসম্মতভাবে এই বিলটির অনুমোদন দিয়ে বন্ধুত্বের মহান উদাহরণ সৃষ্টি করে।
সশ¯্রবাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. মাহফুজুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হষবর্ধন শ্রীংলা এবং ভারতীয় নেীবাহিনী প্রধানের স্ত্রী রিনা লেনবা এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশের নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদের আমন্ত্রণে ভারতের নৌবাহিনী প্রধান সুনীল লেনবা ৬ দিনের শুভেচ্ছা সফরে রোববার ঢাকা আসেন।(বাসস)



sky television /স্কাই টিভি


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *